সমালোচিত ট্রাম্প ফিরছেন যুক্তরাষ্ট্রে

0
433

লিহান লিমা: জলবায়ু, ব্রেক্সিট, অভিবাসনসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে মতানৈক্যের পর দুই দিনের ফ্রান্স সফর শেষে যুক্তরাষ্ট্রে ফিরছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে মধ্যপ্রাচ্য, সিরিয়া সমস্যার সমাধান ও সন্ত্রাসবাদ দমন ইস্যুতে ঐক্যমত পোষণ করেছেন দুই নেতা।ভয়েস অব আমেরিকার খবরে বলা হয়, প্যারিস চুক্তি, ব্রেক্সিট ও অভিবাসন ইস্যুতে ট্রাম্পের সঙ্গে ম্যাক্রোঁর দ্বিমত রয়েছে। তবে যৌথ সংবাদ সম্মেলন শেষে ট্রাম্প বলেছেন, জলবায়ু চুক্তি ইস্যুতে কিছু একটা করা হবে। তবে সেটি কি তা বিস্তারিত জানান নি তিনি। এই কিছু একটা যদি ইতিবাচক হয় তাহলে ২০২০ সালের প্যারিস চুক্তি থেকে চূড়ান্তভাবে বের হয়ে আসার আগেই মত পাল্টাবেন ট্রাম্প। কিছু ক্ষেত্রে দ্বিমত থাকলেও সন্ত্রাসবাদ দমন, সিরিয়া ইস্যুতে রাশিয়ার সঙ্গে কাজ করাসহ দ্বিপাক্ষিক কিছু বিষয়ে একমত হয়েছে ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র।

এই সফরেও বিতর্ক ট্রাম্পের পিছু ছাড়েনি। ব্রিজিতের সঙ্গে কথোপকথনের এক পর্যায়ে ট্রাম্প তাকে বলেন, আপনার শারীরিক গঠন খুব সুন্দর। ব্রিজিত কোন উত্তর না দিলে ট্রাম্প ম্যাক্রোঁকে আবার এই কথার পুনরাবৃত্তি করেন। এরপর আবার ব্রিজিতের দিকে তাকিয়ে বলেন, সুন্দর। ট্রাম্পের এই মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমগুলোতে শুরু হয় সমালোচনা।
অ্যালেক্স ব্রেগ নামক এক টুইটার ব্যবহারকারী বলেন, ‘মানুষ হয়তো বলবে, ট্রাম্প শুধু তাঁর প্রশংসা করেছেন। তবে নারীর শরীর নিয়ে এমন মন্তব্য জঘন্য বিষয়।’

বিদায়ের আগে শুক্রবার ট্রাম্প বাস্তিল দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দেন। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের যোগদানের শততম দিবস উদযাপিত হওয়ার এই অনুষ্ঠানে আমেরিকান এবং ফরাসি সৈন্যরা সম্মিলিত কুচকাওয়াজে অংশ নেন। দুই ঘণ্টা ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে সামরিক ব্যান্ড, আকাশে আমেরিকান যুদ্ধ বিমানের মহড়া অনুষ্ঠিত হয়। সন্ত্রাসী হামলা প্রতিরোধে সাড়ে তিন হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়। এরপর ম্যাক্রোঁ ও ফার্স্ট লেডি ব্রিজিত ম্যাক্রোঁ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পকে বিদায় জানান। সূত্র: ডেইলি মেইল, ভয়েস অব আমেরিকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here