আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ)’র পবিত্র ওরশ পালিত 

0
228

 

নিউইয়র্ক: আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউ এস এর উদ্যোগে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউ এস এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি খতীবে বাঙ্গাল প্রিন্সিপাল আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ) এর প্রথম বাৎসরিক পবিত্র ওরশ শরীফ উক্ত সংগঠনের সভাপতি আল্লামা সৈয়দ জুবায়ের আহমেদ এর সভাপতিত্বে গত ৫ই নভেম্বর রবিবার নিউইয়র্ক ব্রুকলীনস্থ গ্রীন হাউস পার্টি হলে পালিত হয়। মাওলানা সৈয়দ মঈনুল হকের সঞ্চালনায় পবিত্র কুরআনুল কারীম থেকে তিলাওয়াত করেন মাওলানা মোস্তফা কামাল এবং নাতে রাসূল পরিবেশন করেন যথাক্রমে মুহাম্মদ শাহ আলম, মুহাম্মদ ওমর ফারুক এবং উসমান গণি তালুকদার শামীম। স্বাগত বক্তব্য প্রধান করেন সংগঠনের মহাসচিব আলহাজ্ব মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন এবং উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত হুজুর কিবলার বড় সাহেবজাদা ব্যারিস্টার আবু সায়ীদ মুহাম্মদ কাশেম এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মুহাম্মদ কমিশনার।

  

উক্ত ওরশ মাহফিলে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা মুহাম্মদ মাশহুদ ইকবাল, প্রেসিডিয়াম সদস্য মুহাম্মদ মুজিবুর রহমান, সিনিয়র সহ সভাপতি মাওলানা আতাউর রহমান, সহ সভাপতি বৃন্দ আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, মুহাম্মদ আসলাম হাবিব, সৈয়দ হেলাল উদ্দিন মাহমুদ, হাফিজ মাওলানা আব্দুর রহিম মাহমুদ, যুগ্ন মহাসচিব হাজি মুহাম্মদ এস্কান্দার মিয়া, অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ আরিফ চৌধুরী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ ইউসুফ আলী, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, আইন বিষয়ক সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, ধর্মীয় সম্পাদক হাফিজ মাওলানা ওয়াসিম সিদ্দিকী, প্রচার সম্পাদক মাওলানা মোস্তফা কামাল, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক মুহাম্মদ শাহ আলম, প্রযুক্তি ও গবেষণা সম্পাদক উসমান গণি তালুকদার শামীম, প্রফেসর আবুল কালাম চৌধুরী, সৈয়দ এম রেজা, মুনির আহমেদ, মুহাম্মদ হারুন, মুহাম্মদ সেলিম হারুন, আবু তালেব, নাদের আহমেদ, জাহাঙ্গীর আলম, মুহাম্মদ ফয়েজ, মাওলানা আইয়ুব আনসারী ও আক্তার উল আলম প্রমুখ।

আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ) এর জীবনী ও কর্ম ব্যাখ্যা করে বক্তাগণ বলেন যে তিনি ছিলেন দ্বীনের উজ্জ্বল নক্ষত্র। তাঁর ঈমান আমল ইলম তাকওয়া সাধনা ও কর্ম শুধুমাত্র নবীপ্রেম মনন, গঠন ও কর্মতৎপরতায় নিবেদিত ছিল। উল্লেখ্য যে আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ) ছিলেন যুগশ্রেষ্ঠ আলেমে দ্বীন যিনি উপমহাদেশের অন্যতম ওলীয়ে কামেল আল্লামা সৈয়দ আজিজুল হক আলকাদেরী (রহঃ) এর যোগ্য অনুসারী ও আউলাদে রাসূল আল্লামা সৈয়দ আহমদ শাহ সিরিকুটি (রহঃ) এর পরিচালিত কাদেরিয়া তরিকার শ্রেষ্ঠ খাদেম ও তাঁরই প্রতিষ্ঠিত বিশ্বখ্যাত মাদ্রাসা চট্টগ্রামস্থ ঐতিহ্যবাহী জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার সবচেয়ে কার্যকর ও দীর্ঘকালীন প্রিন্সিপাল হিসেবে অত্যন্ত সুনামের সহিত দায়িত্ব আঞ্জাম দেন যার স্বীকৃতি হিসেবে তিনি আলকাদেরী উপাদিতে ভূষিত হন। আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ) চট্টগ্রামস্থ জাতীয় মসজিদ জমিয়তুল ফালাহতে সুদীর্ঘকাল খতিব হিসেবে দায়িত্বপালন করে সাথে সাথে ইসলামের প্রকৃত ধারা আহলে সুন্নাতের আকিদা ও আদর্শ প্রতিষ্ঠায় অত্র মসজিদে প্রতি বছর পবিত্র মুহাররম মাসের প্রথম দশ দিনব্যাপী ঐতিহাসিক আর্ন্তজাতিক পবিত্র শাহাদাতে কারবালা মাহফিল প্রতিষ্ঠা করে বিশ্বের নবীপ্রেমিকদের অন্তরে স্থান করে নিয়ে চিরস্মরনীয় আছেন। দেশব্যাপী ও আর্ন্তজাতিক পরিম-লে তাঁর তকরীর ও বলিষ্ট খুৎবা প্রদানের জন্য তিনি খতীবে বাঙ্গাল উপাধি লাভ করেন। এছাড়াও আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ) একাধারে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের গভর্ণর, জাতীয় খতিব কাউন্সিল বাংলাদেশের চেয়ারম্যান, আন্তর্জাতিক শাহাদাতে কারবালা মাহফিল পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান, আনজুমানে রহমানিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের কার্যকরী সদস্য হিসাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। জীবনের শেষ মূর্হুতে আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ) গত ২০১৬ সালে আমেরিকায় আগমন করে বিভিন্ন স্টেটে মাহফিল করে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অলি প্রেমিক নবী প্রেমিক সকলকে একত্রিত করে সকল সুন্নীমনা আলেম ও নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণ মাধ্যমে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউ এস এ গঠন করেন। এই মহান সেবা ও অবদানের জন্য তাঁকে ইমামে আহলে সুন্নাত ফিল মাগরিব উপাধিতে ভূষিত করা হয়। এ্ই মহান দ্বীনি আলেম ওলীয়ে কামেল ও রাহনুমায়ে শরীয়ত ও তরিকত আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ) গত বছর ঢাকায় অনুষ্ঠিত আলা হজরত (রহঃ) কনফারেন্সের মঞ্চে উপস্থিত অবস্থায় শারীরিক অসুস্থতা অনুভব করলে তাঁকে বারডেম হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে ন তিনি হাজারো লাখো মুফতি মুফাস্সির সহ লাখো কোটি সুন্নি জনতাকে অকুল সাগরে ভাসিয়ে ইন্তেকাল করেন। প্রধান অতিথি আলহাজ্ব পেয়ার মুহাম্মদ কমিশনার বলেন আল্লামা জালালুদ্দীন আলকাদেরী (রহঃ) একটি ইতিহাস যার জীবনকর্ম আলোচনা করে শেষ করা যাবে না। উদ্বোধক হুজুরের সুয্যো সন্তান ব্যারিস্টার আবু সায়ীদ মুহাম্মদ কাশেম বলেন আমার আব্বাজান নবীপাকের একজন সত্যিকারের প্রেমিক ছিলেন বলেই সকলের কাছে স্মরণীয় ও বরণীয় হয়ে থাকবেন।

সমাপনী বক্তব্যে আল্লামা সৈয়দ জুবায়ের আহমেদ বলেন, এই মহান ওলীয়ে কামেলের মাধ্যমে গঠিত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউ এস এ’’র পতাকা তলে সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করে আমেরিকার জমিনে সুন্নিয়তের পতাকা উড়াতে হবে। পরিশেষে মীলাদ ক্বিয়াম সালাতু সালাম ও মুনাজাতের মাধ্যমে সুখ শান্তি কামনা করে ওরশ মাহফিলের সমাপ্তি করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here