ফের ধাক্কা খেল হোয়াইট হাউস

0
249

স্যাংচুয়ারি সিটির অর্থ বরাদ্দ বাতিলে নির্বাহী আদেশ

প্রবাস রিপোট: আনডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টদের আশ্রয়স্থল হিসেবে স্বীকৃত অভয়ারণ্য হিসাবে অভিহিত স্যাংচুয়ারি সিটি জন্য বরাদ্দ বাতিল করে ট্রাম্প যে নির্বাহী আদেশ জারি করেছিলেন তা স্থগিত করে দিয়েছে মঙ্গলবার সানফ্রান্সিসকোর ডিসট্রিক্ট জজ উইলিয়াম ওরিক। সানফ্রান্সিসকো শহর ও সান্তাক্লারা কাউন্টির করা দুটি মামলার প্রাথমিক রায়ে তিনি জানান, ফেডারেল সরকারের নির্ধারিত বরাদ্দের বাইরে নতুন শর্তারোপ করার কোনো অধিকার প্রেসিডেন্টের নেই। ফলে নিউইয়র্ক ও লস এঞ্জেলস সিটিসহ যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ৩০০ স্যাংচুয়ারি সিটির বাজেট নিয়ে যে আশ্কংা সৃষ্টি হয়েছিল তার আপাতত দূরীভূত হলো।
অভিযোগ আছে এই স্যাংচুয়ারি সিটিতে অবস্থানকারী আনডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টদের ক্ষেত্রে ফেডারেল সরকারের নির্দেশ সীমিত আকারে মানা হয়। এসব শহরে কেন্দ্রীয় সরকার যে অর্থ সহায়তা দেয় তা বাতিল বা প্রত্যাহারের জন্য গত ২৫ জানুয়ারি ট্রাম্প একটি নির্বাহী আদেশ দেন। ট্রাম্পের এ আদেশের ফলে দেশজুড়ে প্রায় ৩ শতাধিক শহর ও কাউন্টির ওপর প্রভাব পড়ত। এতে সানফ্রান্সিসকো শহরের নির্ধারিত ১৭০ কোটি ডলার ও সান্তাক্লারা কাউন্টির জন্য ১২০ কোটি ডলার অর্থ বরাদ্দ হুমকির মুখে পড়ে। ফলে তা বাতিলের দাবি জানিয়ে মামলা করে তারা। হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ রেইন্স প্রিবাস বলেন, ডিস্ট্রিক্ট আদালতের এ রায়ের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে মার্কিন প্রশাসন। এর আগে তার ইমিগ্রান্ট বিরোধী নির্বাহী আদেশ আটকে দেয় আদালত।
তরুণ অভিবাসীদের নিশ্চিন্ত থাকতে বললেন ট্রাম্প
এদিকে শিশুকালে আমেরিকায় এসেছেন ও এখন বসবাস করছেন এমন তরুণ ইমিগ্রান্টদের নিশ্চিন্ত থাকতে বলেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, তার সরকারের ইমিগ্রেশন নীতির আওতায় পড়বে না এই তরুণ-তরুণীরা। সাবেক প্রেসিডেন্ট ওবামা এই তরুণদেও জন্য ডেফার্ড অ্যাকশন অন পাইল্ডহুড প্রোগ্রামের অধীনে তাদেরকে যুক্তরাষ্ট্রে বৈধভাবে বসবাস ও ওয়ার্ক পারমিট প্রদান করেন।
নিজের ক্ষমতারোহণের শততম দিনকে সামনে রেখে বার্তাসংস্থা এপি’র সঙ্গে শুক্রবার এক দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, ‘আমার প্রশাসন এই স্বপ্নবাজদের বিরুদ্ধে নয়। আমরা অপরাধীদের তাড়া করছি।’ ইমিগ্রেশন, নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি, মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল, পররাষ্ট্রনীতি, উইকিলিকস, বিদেশি নেতাদের সঙ্গে সম্পর্ক সহ বিভিন্ন ইস্যুতে এই সাক্ষাৎকারে কথা বলেন তিনি।
মুসলিম ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা রিভিউ পিটিশন প্রত্যাখ্যান
এদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নিব্যাহী আদেশে মুসিলম ব্যান পর্যালোচনা করতে আপিল বিভাগের ১১ জন সদস্য যে আবেদন জানিয়েছেন তা প্রত্যাখ্যান করেছে নাইন সার্কিট আদালত। শুক্রবার এ আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়। লস এঞ্জেলস টাইমেেসর প্রতিবেদন অনুযায়ী, ‘হাওয়াই এর ইএন বেঞ্চ’ প্যানেলের পর্যালোচনার অনুরোধ বাতিলের যে আদেশ দিয়েছে তাই বহাল থাকবে। সানফ্রান্সিসকো ভিত্তিক আপিল কোর্ট ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা স্থগিত থাকবে। উল্লেখ্য, ছয়টি মুসলিম দেশ থেকে বিদেশী নাগরিকদের যুক্তরাস্ট্রে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যে যুদ্ধ শুরু হয়েছিল তা নিয়ে অন্যান্য আদালতে মামলা চলছে। ফোর্থ সার্কিটের আপ্রিল অনুযায়ী মে মাস থেকেই ট্রাম্পের ভ্রমন নিষেধাজ্ঞার মামলার শুনানি হওয়ার কথা ছিল তবে আদালতের আবেদনে এটি এপ্রিলে আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here